দেশজুড়ে ক্যাডবেরি সংস্থার সব ধরনের চকোলেট না কেনার ডাক দেওয়া হয়। কিন্তু কেন? সংস্থার কিছু খাবারে ব্যবহার করা হয় জেলাটিন। সে কথা উল্লেখ করা আছে সংস্থার ওয়েবসাইটেও। সে অংশেরই একটি ছবি ঘুরতে থাকে টুইটারে। তা ঘিরেই ঝড় উঠল।

গরুর মাংস থেকে তৈরি হয় জেলাটিন। এমন জিনিস ভারতীয় হিন্দুরা কী ভাবে খাবেন? কেনই বা ভারতে আসবে সে জিনিস? এমন সব প্রশ্ন তুলে সংস্থার উপরে অনেকেই রাগ উগরে দেন নেট দুনিয়ায়।

ওয়েবসাইটের সেই অংশের ছবির নীচে ঘটনাটি সত্যি কিনা জানতে চাওয়া হয়। সঙ্গে ট্যাগ করা হয় ক্যাডবিরে ইউকে-কে। এ কথা যদি সত্যি হয়, তবে গরুর মাংস থেকে তৈরি কোনও খাবার ভারতের হিন্দুদের খাওয়ানোর জন্য ক্যাডবেরি সংস্থার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া উচিত বলেও দাবি ওঠে। এক নেটাগরিক লেখেন, ‘আমাদের পূর্ব পুরুষেরা প্রাণ দিয়েছেন নিজেদের, তবু গরুর মাংস মুখে তোলেননি কখনও তাঁরা।’ এর নীচেই জমতে থাকে কয়েকশো নেটাগরিকের বক্তব্য। এমন কাণ্ডের পরে বিট্রেনের এই সংস্থার সব খাবার একেবারের বর্জন করা উচিত বলেই তাঁরা বক্তব্য প্রকাশ করেন।

সংস্থা উত্তরও দিয়েছে এর। ক্যাডবেরি ডেয়ারি মিল্ক বিষয়টি ব্যাখ্যা করে জানিয়েছে, ভারতে যে সব খাবার বিক্রি করে ওই সংস্থা, তা পুরোপুরি ভাবে নিরামিষ। ওয়েবসাইটের যে অংশের ছবি ঘুরছে টুইটারে, তা আদৌ ভারতের কোনও সামগ্রীর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়। তাদের তরফে উল্লেখ করা হয়, সবুজ একটি চিহ্ন থাকে যে কোনও চকোলেটের মোড়কে। তা বুঝিয়ে দেয় যে সেই খাবারটি সম্পূর্ণ নিরামিষ। সংস্থার দাবি ভারতে তেমন চকোলেটই পাঠানো হয়।